মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪ , ৭.শ্রাবণ.১৪৩১

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৯:৩০, ৪ জানুয়ারি ২০২৪

তুরস্কে গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের ৩৩ গ্রেফতার

তুরস্কে গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের ৩৩ গ্রেফতার
রয়টার্স থেকে সংগৃহীত

ইসরায়েলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের হয়ে কাজ করছে সন্দেহে তুরস্কে ৩৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। যারা তুরস্কে বসবাস করা বিদেশিদের তাদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করতো বলে জানিয়েছে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলি ইয়ারলিকায়া।

গত মাসে তুরস্ক ইসরায়েলকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছিল, যদি তারা (ইসরায়েল) তুরস্কসহ ফিলিস্তিন ভূখণ্ডের বাইরে বসবাস করা হামাস নেতাদের তাদের শিকারে পরিণত করার চেষ্টা করে তবে তাদের জন্য ‘গুরুতর পরিণতি’ অপেক্ষা করছে। এমনটা করলে ইসরায়েল ভুল করবে বলে সতর্ক করেছিলেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়িপ এরদোয়ানও। এখানে উল্লেখ্য, তুরস্ক হামাসকে জঙ্গি সংগঠন বলে মনে করেন না।

মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ারলিকায়া বলেন, একটি তদন্তের অংশ হিসেবে পুলিশ আটটি প্রদেশের ৫৭টি স্থানে অভিযান চালিয়েছে। যে অভিযানের নাম দেওয়া হয়েছে ‘অপারেশন মোল’। অভিযানে গ্রেপ্তারের পাশাপাশি মোট অংকের বৈদেশিক মুদ্রাও জব্দ করা হয়েছে। তুরস্কের দুর্নীতি দমন ব্যুরো এবং গোয়েন্দা সংস্থা এমআইটি এই অভিযান পরিচালনা করছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্স এ এক পোস্টে তিনি আরো বলেন, গ্রেপ্তার সন্দেহভাজনরা তুরস্কে বসবাস করা বিদেশিদের পরিচয় জানা, তাদের উপর নজর রাখা, গুপ্ত হত্যা এবং অপহরণের সঙ্গে জড়িত ছিল। একই অভিযোগে আরো ১৩ জনকে খোঁজা হচ্ছে বলে জানিয়েছে তুরস্কের রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদ সংস্থা আনাদলু।

গ্রেপ্তারের বিষয়ে জানতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স থেকে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করা হয়েছিল। কিন্তু কোনো সাড়া মেলেনি।

গত ৭ অক্টোবর গাজা থেকে ফিলিস্তিনিদের সশস্ত্র সংগঠন হামাস ইসরায়েলে নজিরবিহীন হামলা চালিয়ে ১২শ’র বেশি মানুষকে হত্যা করে। জিম্মি করে নিয়ে যায় আরো ২৪২ জনকে। হামাসকে নির্মূল করতে ওই দিন থেকেই গাজায় তীব্র হামলা শুরু করে ইসরায়েল। যা এখনো অব্যাহত আছে। ইসরায়েলের হামলায় গাজায় ২২ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। নিহতদের একটি বড় অংশ নারী ও শিশু।

তুরস্ক শুরু থেকেই গাজায় ইসরায়েলের হামলার তীব্র সমালোচনা করে আসছে। গত সপ্তাহে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান খোলাখুলি ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহুকে কড়া ভাষায় নিন্দা জানিয়েছেন।