২ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ ইংরেজি, ১:৪৯ পূর্বাহ্ণ
Find us on facebook Find us on twitter Find us on you tube RSS feed
প্রচ্ছদ আওয়ামী লীগ বিএনপি ধর্মভিত্তিক দল জাতীয় পার্টি বামদল অন্যান্য দল প্রশাসন জাতীয় সংসদ নির্বাচন কমিশন শ্রমিক রাজনীতি ছাত্র রাজনীতি
সারাদেশ নিরাপত্তা ও অপরাধ বিশ্ব রাজনীতি উন্নয়ন ও সংগঠন অন্যান সংবাদ প্রবাস সাক্ষাতকার বই মতামত ইতিহাস অর্থনীতি
04 Jul 2017   06:55:12 PM   Tuesday BdST A- A A+ Print this E-mail this

বাসায় ফেরার অনুমতি পেলেন ফরহাদ মজহার

নিজস্ব প্রতিবেদক
পলিটিক্সবিডি.কম
 বাসায় ফেরার অনুমতি পেলেন ফরহাদ মজহার

নাটকীয়ভাবে যশোরে ‘উদ্ধার’ ফরহাদ মজহার ঢাকার আদালতে জবানবন্দি দেওয়ার পর বাসায় ফেরার অনুমতি পেয়েছেন। ঢাকার মহানগর হাকিম আহসান হাবীব মঙ্গলবার বিকালে তার খাস কামরায় ১৬৪ ধারায় ফরহাদ মজহারের বিচারিক জবানবন্দি রেকর্ড করেন। পরে ১০ হাজার টাকার মুচলেকায় স্বাক্ষর নিয়ে তাকে নিজের জিম্মায় বাড়ি ফেরার অনুমতি দেন বিচারক।
পুলিশ দুপুরে ফরহাদ মজহারকে আদালতে হাজির করার পর তাকে নিজের  জিম্মায় যাওয়ার অনুমতি চেয়ে আবেদন করেন আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া, যিনি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পক্ষেও মামলা লড়েন। ফরহাদ মজহারের স্ত্রী ফরিদা আখতার, মেয়ে শমতলী হক, ভাগ্নে মেজর ফেরদৌসসহ কয়েকজন পারিবারিক বন্ধু এ সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন।
শুনানিতে সানাউল্লাহ মিয়া বলেন,ফরহাদ মজহারের মামলার বিষয় আমরা কিছুই জানি না। জবানবন্দিতে কী বলেছেন তাও জানি না। আপনি কি দয়া করে আমাদের জানাবেন? উত্তরে বিচারক বলেন, এটা ৩৮৫ এবং ৩৬৫ ধারার মামলা; অর্থাৎ অপহরণ ও চাঁদাবাজি সংক্রান্ত অপরাধ। ফরহাদ মজহার জবানবন্দিতে আমার কাছে কী বলেছেন, তা আপনাকে আমি বলতে পারি না। সে বিষয়ে পুলিশ ব্রিফ করবে।
এরপর বিচারক আদালতে উপস্থিত ফরহাদ মজহারকে প্রশ্ন করেন,আপনি কি নিজের জিম্মায় যেতে ইচ্ছুক? উত্তরে ফরহাদ মজহার বলেন,জি, আমি ইচ্ছুক।
পাঁচ মিনিটের শুনানি শেষে মুচলেকায় সই করে পরিবারের সঙ্গে মিলিত হন ডানপন্থি অধিকার কর্মী হিসেবে পরিচিত এই কবি, প্রাবন্ধিক, যিনি ঢাকার শ্যামলী রিং রোডের বাসা থেকে সোমবার ভোরে বের হয়ে অপহ্নত হন বলে তার স্ত্রীর করা মামলার অভিযোগ।
উল্লেখ্য, সোমবার (৩ জুলাই) ভোররাতে মোহাম্মদপুর লিংক রোডের হক গার্ডেনের নিজ বাসা থেকে বের হন ফরহাদ মজহার। এরপর ভোর ৫টা ২৯ মিনিটে তিনি তার স্ত্রীকে ফোন করে জানান, ‘ফরিদা, ওরা আমাকে নিয়ে যাচ্ছে। ওরা আমাকে মেরে ফেলবে।’ পরে তার স্ত্রী আদাবর থানায় অভিযোগ করেন। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার রাতে র‌্যাব-৬ যশোর নওয়াপাড়া থেকে তাকে উদ্ধার করে। পরে তাকে আদাবর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। পুলিশের সহকারী কমিশনার (এসি) হাফিজ আল ফারুকের নেতৃত্বে তাকে যশোর থেকে ঢাকায় আনা হয়। এরপর তাকে মিন্টো রোডের গোয়েন্দা কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে জবানবন্দি দেওয়ার জন্য আদালতে পাঠানো হয়।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

নিরাপত্তা ও অপরাধ-এর সর্বশেষ

প্রচ্ছদ আওয়ামী লীগ বিএনপি ধর্মভিত্তিক দল জাতীয় পার্টি বামদল অন্যান্য দল প্রশাসন জাতীয় সংসদ নির্বাচন কমিশন শ্রমিক রাজনীতি ছাত্র রাজনীতি
সারাদেশ নিরাপত্তা ও অপরাধ বিশ্ব রাজনীতি উন্নয়ন ও সংগঠন অন্যান সংবাদ প্রবাস সাক্ষাতকার বই মতামত ইতিহাস অর্থনীতি

সম্পাদক : আবু জাফর সূর্য

কপিরাইট © 2019 পলিটিক্সবিডি.কম কর্তৃক সর্ব স্বত্ব ® সংরক্ষিত। Developed by eMythMakers.com