২ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ ইংরেজি, ২:৩৩ পূর্বাহ্ণ
Find us on facebook Find us on twitter Find us on you tube RSS feed
প্রচ্ছদ আওয়ামী লীগ বিএনপি ধর্মভিত্তিক দল জাতীয় পার্টি বামদল অন্যান্য দল প্রশাসন জাতীয় সংসদ নির্বাচন কমিশন শ্রমিক রাজনীতি ছাত্র রাজনীতি
সারাদেশ নিরাপত্তা ও অপরাধ বিশ্ব রাজনীতি উন্নয়ন ও সংগঠন অন্যান সংবাদ প্রবাস সাক্ষাতকার বই মতামত ইতিহাস অর্থনীতি
21 Apr 2015   02:14:02 PM   Tuesday BdST A- A A+ Print this E-mail this

অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ

খালেদা জিয়াকে হত্যার উদ্দেশ্যেই হামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
পলিটিক্সবিডি.কম
অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ খালেদা জিয়াকে হত্যার উদ্দেশ্যেই হামলা

খালেদা জিয়াকে হত্যার উদ্দেশ্যেই সোমবার তার গাড়িবহরে হামলা ও গুলি করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন আদর্শ ঢাকা আন্দোলনের আহ্বায়ক অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ। তিনি বলেন, গাড়ি বুলেটপ্রুফ হওয়ায় তিনি প্রাণে বেঁচে গেছেন।মঙ্গলবার সকালে পুরানা পল্টনে আদর্শ ঢাকা আন্দোলনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সাবেক এই উপাচার্য।
তিনি বলেন, হামলার ঘটনায় সরকারের পক্ষ থেকে দুঃখবোধ হওয়া উচিত ছিল। কিন্তু তা না করে খালেদা জিয়ার নিরাপত্তাকর্মীসহ ১০০ জনের বিরুদ্ধে উল্টো মামলা করা হয়েছে। বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় এসেছে, ছাত্রলীগের আল আমিন হামলা করেছে। অথচ প্রধানমন্ত্রী এ হামলাকে নাটক বলে অভিহিত করেছেন, এটা দুঃখজনক।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার মন্ত্রীদের উস্কানিমূলক বক্তব্যের পর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা হামলা করেছে বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন, নির্বাচন সফল হতে হলে নির্বাচন কমিশনকে দুটি বিষয়ে কাজ করতে হবে। প্রত্যেক ভোটারকে তাদের ইচ্ছামতো ভোট দেওয়ার সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে। প্রত্যেক প্রার্থী ভোটারদের কাছে যেন যেতে পারেন, সে ব্যবস্থা করতে হবে।
সংবাদ সম্মেলনে আদর্শ ঢাকা আন্দোলনের সদস্য সচিব সাংবাদিক শওকত মাহমুদ বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ওপর হামলার ঘটনায় আমরা উদ্বিগ্ন। আমরা এ ঘটনার জন্য প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রীদের উস্কাকিমূলক বক্তব্যকে দায়ী করছি। তিনি অভিযোগ করেন, নির্বাচনে জয়-পরাজয় আছে। সরকার তাদের সমর্থিত প্রার্থীদের নিশ্চিত পরাজয় জেনে হামলা-মামলা শুরু করছে। বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীদের গ্রেফতার করছে। এ সব ঘটনা সুষ্ঠু নির্বাচনের পথে বাধা।
নির্বাচন কমিশনের প্রতি সুষ্ঠু নির্বাচনী পরিবেশ সৃষ্টির আহ্বান জানিয়ে শওকত মাহমুদ বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য নির্বাচনের কয়েক দিন আগে সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে। এ ছাড়া সব কেন্দ্রে  সিসি ক্যামেরা স্থাপন ও যে সব থানার ওসিরা সরকার সমর্থিত প্রার্থীদের পক্ষে কাজ করছেন তাদের চিহ্নিত করে বদলি করার দাবিও জানান তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ঢাবি শিক্ষক প্রফেসর মাহবুব উল্লাহ, সাবেক সচিব আ ন হ আকতার হোসেন, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কবি আবদুল হাই শিকদার, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান ও ন্যাপ মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

উন্নয়ন ও সংগঠন-এর সর্বশেষ

প্রচ্ছদ আওয়ামী লীগ বিএনপি ধর্মভিত্তিক দল জাতীয় পার্টি বামদল অন্যান্য দল প্রশাসন জাতীয় সংসদ নির্বাচন কমিশন শ্রমিক রাজনীতি ছাত্র রাজনীতি
সারাদেশ নিরাপত্তা ও অপরাধ বিশ্ব রাজনীতি উন্নয়ন ও সংগঠন অন্যান সংবাদ প্রবাস সাক্ষাতকার বই মতামত ইতিহাস অর্থনীতি

সম্পাদক : আবু জাফর সূর্য

কপিরাইট © 2019 পলিটিক্সবিডি.কম কর্তৃক সর্ব স্বত্ব ® সংরক্ষিত। Developed by eMythMakers.com