২ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ ইংরেজি, ১:১০ পূর্বাহ্ণ
Find us on facebook Find us on twitter Find us on you tube RSS feed
প্রচ্ছদ আওয়ামী লীগ বিএনপি ধর্মভিত্তিক দল জাতীয় পার্টি বামদল অন্যান্য দল প্রশাসন জাতীয় সংসদ নির্বাচন কমিশন শ্রমিক রাজনীতি ছাত্র রাজনীতি
সারাদেশ নিরাপত্তা ও অপরাধ বিশ্ব রাজনীতি উন্নয়ন ও সংগঠন অন্যান সংবাদ প্রবাস সাক্ষাতকার বই মতামত ইতিহাস অর্থনীতি
25 May 2017   05:51:27 PM   Thursday BdST A- A A+ Print this E-mail this

প্রার্থী বাছাই ও ইশতেহার

তৈরিতে হাত দিয়েছেন এরশাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক
পলিটিক্সবিডি.কম
প্রার্থী বাছাই ও ইশতেহার তৈরিতে হাত দিয়েছেন এরশাদ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রার্থী বাছাই ও ইশতেহারের কাজ শুরু করেছে সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টি। দলীয় দায়িত্বশীল নেতাদের তৈরি তালিকা ধরে বিভিন্ন বিবেচনায় সম্ভাব্য প্রার্থীকে ডেকে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে বলছেন পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ। অন্যদিকে, গত ১ জানুয়ারি দেওয়া এরশাদের বক্তব্যের রেশ ধরে দলের নির্বাচনি ইশতেহার তৈরিও প্রক্রিয়াধীন। দলের শীর্ষস্থানীয় দায়িত্বশীল কয়েকটি সূত্র এসব তথ্য জানায়।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ বলেন, আমাদের প্রার্থী বাছাই শুরু হয়েছে। কাউকে-কাউকে বলছি, পরামর্শ দিচ্ছি। তিনি বলেন, প্রার্থী বাছাই শুরু করেছি।
জাপার একটি সূত্র জানায়, এরই মধ্যে জেলার দায়িত্বে থাকা নেতাদের কাছ থেকে তালিকা নিয়েছেন এরশাদ। এই তালিকা ধরে তিনি নিজে থেকেই প্রার্থীদের ডেকে কথা বলছেন। যদিও সম্মিলিত জাতীয় জোট থাকায় শরিকদের বিষয়টিও মাথায় রাখছেন এরশাদ। এ কারণে সরাসরি মনোনয়ন চূড়ান্ত করা থেকে বিরত রয়েছেন তিনি।
জাপার কো-চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেন, চেয়ারম্যান আমাদের থেকে নাম নিয়েছেন। আমরা যারা জেলার দায়িত্বে ছিলাম, তালিকা করে তাকে দিয়েছি। এখন মনোনয়নের বিষয়টি তিনিই দেখবেন। সম্ভাব্য প্রার্থীদের ডেকে নির্বাচনের আউটলাইন বাতলে দিচ্ছেন এরশাদ।
এ প্রসঙ্গে জাপা প্রধান এরশাদ বললেন,জাপা নির্বাচন করবে জোটগতভাবে। এ কারণে জোটের সঙ্গে বৈঠক করেই মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হবে।
ইশতেহারে প্রাধান্য পাচ্ছে তিনটি বিষয় উল্লেখ করে জাতীয় পার্টির দলীয় প্রধান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ জানান, তার দলের ইশতেহার তৈরির কাজ চলছে। তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে আমাদের প্রতিপাদ্য থাকবে তিনটি বিষয়। এগুলো হল প্রাদেশিক সরকার ব্যবস্থা, নির্বাচন ব্যবস্থার পদ্ধতির সংস্কার ও পূর্ণাঙ্গ উপজেলা ব্যবস্থা প্রবর্তন। এই তিনটি বিষয়ই ইশতেহারের মূল বিষয় হিসেবে থাকবে। আমরা ক্ষমতায় গেলে এই বিষয়গুলো বাস্তবায়ন করব।
জাপা সূত্র জানায়, এ বছরের প্রথম দিনে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দলের জাতীয় পার্টির ৩১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এরশাদের বক্তব্যে আগামী নির্বাচনে ইশতেহারের বিষয়ে ইঙ্গিত ছিল। তিনি প্রাদেশিক সরকার চালু করার কথা জানিয়েছিলেন। একইসঙ্গে পূর্ণাঙ্গ উপজেলা ব্যবস্থাও প্রবর্তন করার ব্যাপারে ইতিবাচক ছিলেন। পরে গত বছরের শেষের দিকে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে নির্বাচন কমিশন গঠনসংক্রান্ত সংলাপেও নির্বাচন পদ্ধতির পরিবর্তনের কথা বলেন।
এদিকে জাপার কোনও কোনও নেতা নির্বাচনের আগে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও রাজপথের বিরোধী দল বিএনপির মতো ভিশন ঘোষণার সম্ভাবনার কথা বললেও এরশাদ তা খারিজ করে দেন। এ বিষয়ে তিনি বলেন, কোনও ভিশন দেওয়ার পরিকল্পনা নেই আমাদের।
জাতীয় পার্টির একটি সূত্র জানায়, নির্বাচনের আগে আগে ইশতেহার ঘোষণা করার রেওয়াজ থাকলেও প্রস্তুতি শুরু হয়েছে এরই মধ্যে। দলের মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার ও প্রেসিডিয়ামের সদস্য, এরশাদের রাজনৈতিক সচিব সুনীল শুভরায় ইশতেহার তৈরির সঙ্গে সরাসরি যুক্ত।
জাপা সূত্র জানায়, নির্বাচনের জন্য ৩শ আসনেই প্রার্থী প্রস্তুতি রাখছে জাপা। এক্ষেত্রে জোটের শরিক দলগুলোকে মাথাপিছু দুই থেকে তিনটি আসনে সমর্থন দেওয়ার চিন্তা আছে দলটির। এরশাদের নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত জাতীয় জোটের বেশিরভাগ দলই অনিবন্ধিত। জাপা ও ইসলামী ফ্রন্ট ছাড়া বাকিদের সংগঠনের পাশাপাশি কোনও জনভিত্তি নেই। এমনকি রাজনৈতিক কার্যালয়ও নেই বেশিরভাগ দলের।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

জাতীয় পার্টি-এর সর্বশেষ

প্রচ্ছদ আওয়ামী লীগ বিএনপি ধর্মভিত্তিক দল জাতীয় পার্টি বামদল অন্যান্য দল প্রশাসন জাতীয় সংসদ নির্বাচন কমিশন শ্রমিক রাজনীতি ছাত্র রাজনীতি
সারাদেশ নিরাপত্তা ও অপরাধ বিশ্ব রাজনীতি উন্নয়ন ও সংগঠন অন্যান সংবাদ প্রবাস সাক্ষাতকার বই মতামত ইতিহাস অর্থনীতি

সম্পাদক : আবু জাফর সূর্য

কপিরাইট © 2019 পলিটিক্সবিডি.কম কর্তৃক সর্ব স্বত্ব ® সংরক্ষিত। Developed by eMythMakers.com