২ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ ইংরেজি, ২:৪৭ পূর্বাহ্ণ
Find us on facebook Find us on twitter Find us on you tube RSS feed
প্রচ্ছদ আওয়ামী লীগ বিএনপি ধর্মভিত্তিক দল জাতীয় পার্টি বামদল অন্যান্য দল প্রশাসন জাতীয় সংসদ নির্বাচন কমিশন শ্রমিক রাজনীতি ছাত্র রাজনীতি
সারাদেশ নিরাপত্তা ও অপরাধ বিশ্ব রাজনীতি উন্নয়ন ও সংগঠন অন্যান সংবাদ প্রবাস সাক্ষাতকার বই মতামত ইতিহাস অর্থনীতি
29 Apr 2015   04:35:14 PM   Wednesday BdST A- A A+ Print this E-mail this

প্রশ্নবিদ্ধ ভোট, সরকার সমর্থকদের জয়

নিজস্ব প্রতিবেদক
পলিটিক্সবিডি.কম
 প্রশ্নবিদ্ধ ভোট, সরকার সমর্থকদের জয়

কেন্দ্র দখল, ভোট জালিয়াতির অভিযোগে তিন সিটি করপোরশেন নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীরা নির্বাচন বর্জনের মধ্যে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সমর্থিত প্রার্থীরাই মেয়র নিবাচিত হয়েছে। ইতিমধ্যে বেসরকারীভাবে তিনজনকে বিজয়ী ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ঢাকা উত্তরে আনিসুল হক, দক্ষিণে সাঈদ খোকন এবং চট্টগ্রামে আ জ ম নাছির উদ্দিনকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তারা।
ঢাকা উত্তরে আনিসুল হক টেবিল ঘড়ি প্রতীকে ভোট পেয়েছেন চার লাখ ৬০ হাজার ১১৭ এবং তার নিকটতম প্রতিদ্ধন্ধি বিএনপি সমর্থিত মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল বাস প্রতীকে পেয়েছেন তিন লাখ ২৫হাজার ৮০ ভোট। দক্ষিণে সরকার সমর্থিত সাঈদ খোকন ইলিশ মাছ প্রতীকে পাচঁ লাখ ৩৫ হাজার ২৯৬ পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্ধন্ধি বিএনপি সমর্থিত মির্জা আব্বাস মগ প্রতীকে পেয়েছেন দুই লাখ ৯৪হাজার ২৯ ভোট। চট্টগ্রামে আওয়ামী লীগ সমর্থিত আ জ ম নাছির উদ্দিন হাতি প্রতীকে পেয়েছেন চার লাখ ৭৫হাজার ৩৬১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্ধন্ধি বিএনপি সমর্থিত এম মনজুর আলম কমলালেবু প্রতীকে তিন লাখ ৪ হাজার ৮৩৭ ভোট। এই তিনজনই প্রথমবারের মতো মেয়র নির্বাচিত হলেন।
মঙ্গলবার ভোটের মাঝখানে ক্ষমতাসীনদের বিরুদ্ধে প্রায় সব কেন্দ্র দখল ও কারচুপির অভিযোগ এনে ঢাকা ও চট্টগ্রামের তিন সিটি নির্বাচন প্রত্যাখ্যান ও বর্জনের ঘোষণা দেয় বিএনপি। একই অভিযোগ তোলে বাম দলগুলোও। কারচুপির অভিযোগ এনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ বলেন, এটা কোনো নির্বাচন হয় নাই। এটাকে নির্বাচন বলা যায় না। ভোটবিহীন এই নির্বাচনকে আমরা প্রত্যাখ্যান করছি। এসময় ঢাকা দক্ষিণের প্রার্থী মির্জা আব্বাসের স্ত্রী আফরোজা আব্বাস এবং উত্তরের প্রার্থী তাবিথ আউয়াল পাশে ছিলেন মওদুদের। চট্টগ্রামে বিএনপি সমর্থিত মেয়র প্রার্থী এম মনজুর আলম এর ঘণ্টাখানেক আগেই ভোট বর্জনের কথা জানান।
তবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ বলেছে, জনমত বিপক্ষে জেনে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতেই বিএনপি পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী ভোট বর্জন করেছে। আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, নাটকীয় পরিবেশ সৃষ্টি করে বিএনপি নির্বাচন বর্জন করেছে। তারা কোনো সুনির্দিষ্ট অভিযোগ দেখাতে পারেনি। কোনো একটি অনিয়মের তথ্য দিতে পারেনি বিএনপি।
প্রধান দুই দলের এমন পাল্টাপাল্টি অবস্থানে ভোট শেষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ বলেন, কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া ভোট অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে। তিনটি কেন্দ্রে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাওয়ায় ভোট বাতিল হয়েছে। ফলাফল মেনে নিয়ে প্রার্থী ও সমর্থকদের গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখতে সবার প্রতি অনুরোধ জানান সিইসি।
মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোট চলে তিন সিটি করপোরেশনে।অন্তত  ২০টি কেন্দ্রে গোলযোগের খবর পাওয়া গেলেও ঢাকা দক্ষিণের তিনটি কেন্দ্রেই কেবল ভোট স্থগিত হয়েছে। এ তিন সিটিতে ভোটের মধ্য দিয়ে দেশের সব সিটি করপোরেশনে বর্তমানে নির্বাচিত মেয়র হল।
এছাড়া ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে অন্য মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে মাহী বি চৌধুরী (ঈগল) ১৩৪০৭, জোনায়েদ সাকি (টেলিস্কোপ) ৭৩৭০, কাফি রতন (হাতি ) ২৪৭৫, বাহাউদ্দিন আহমেদ বাবুল (চরকা) ২৯৫০, নাদের চৌধুরী (ময়ূর) ১৪১২, এ ওয়াই এম কামরুল ইসলাম (ক্রিকেট ব্যাট) ১২১৬, কাজী মো. শহীদুল্লাহ (ইলিশ) ২৯৬৮, শেখ মো. ফজলে বারী মাসউদ (কমলা লেবু) ১৮০৫০, শামছুল আলম চৌধুরী (চিতাবাঘ) ৯৮২, মোয়াজ্জেম হোসেন খান মজলিশ (ফ্লাক্স) ১০৯৫, চৌধুরী ইরাদ আহম্মদ সিদ্দিকী (লাউ) ৯১৫, মো. আনিসুজ্জামান খোকন (ডিশ এন্টেনা) ৯০০, মো. জামান ভূঞা (টেবিল) ১১৪০ ও শেখ শহিদুজ্জামান (দিয়াশলাই) ৯২৩ ভোট পেয়েছেন।
ঢাকা দক্ষিণের অন্য মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে আব্দুর রহমান ফ্লাস্ক প্রতীকে ১৪,৭৮৪ ভোট, সোফা প্রতীকে জাতীয় পার্টির সাইফুদ্দিন মিলন ৪৫১৯ ভোট, চরকা প্রতীকে আবু নাছের মোহাম্মদ মাসুদ হোসাইন ২,১৯৭ ভোট, টেবিল ঘড়ি প্রতীকে রেজাউল করিম চৌধুরী ২,১৭৩ ভোট, জাহাজ প্রতীকে শাহীন খান ২,০৭৪ ভোট, আংটি প্রতীকে গোলাম মওলা রনি ১,৮৮৭ ভোট, বাস প্রতীকে শহীদুল ইসলাম ১,২৩৯ ভোট ও টেবিল প্রতীকে সিপিবি-বাসদের বজলুর রশীদ ফিরোজ ১,০২৯ ভোট পেয়েছেন।
ল্যাপটপ প্রতীকে জাহিদুর রহমান ৯৮৮ ভোট, কমলা লেবু প্রতীকে বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপন ৯২৮ ভোট, ক্রিকেট ব্যাট প্রতীকে এ এস এম আকরাম ৬৮২ ভোট, হাতি প্রতীকে দিলীপ ভদ্র ৬৬৯ ভোট, কেক প্রতীকে আব্দুল খালেক ৫৫০ ভোট, ময়ূর প্রতীকে শফিউল্লাহ চৌধুরী ৫১২ ভোট, চিতা বাঘ প্রতীকে মশিউর রহমান ৫০৮, লাউ প্রতীকে মো. আকতারুজ্জামান ওরফে আয়াতুল্লাহ ৩৬২ ভোট, ঈগল প্রতীকে আয়ুব হোসেন ৩৫৪ ভোট এবং শার্ট প্রতীকে বাহরানে সুলতান বাহার ৩১৩ ভোট পেয়েছেন।
চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে অন্য প্রার্থীদের মধ্যে ইসলামী ফ্রন্টের এম এ মতিন চরকা প্রতীকে ১১,৬৫৫ ভোট, ওয়ায়েজ হোসেন ভুঁইয়া টেবিল ঘড়ি প্রতীকে ৯,৬৬৮ ভোট, জাতীয় পার্টি সমর্থিত মেয়র প্রার্থী সোলায়মান আলম শেঠ ডিশ অ্যান্টেনা প্রতীকে ৬,১৩১ ভোট, ইসলামিক ফ্রন্টের হোসাইন মোহাম্মদ মুজিবুল হক শুক্কুর ময়ূর প্রতীকে  ৪,২১৫ ভোট, সাইফুদ্দিন আহমেদ রবি ফ্লাক্স প্রতীকে  ২,৬৬১ ভোট,  গাজী মো. আলাউদ্দিন টেলিস্কোপ প্রতীকে ২,১৪৯ ভোট, বিএনএফের আরিফ মঈনুদ্দিন বাস প্রতীকে  ১,৭৭৪ ভোট,  আবুল কালাম আজাদ দিয়াশলাই প্রতীকে ১,৩৮৫ ভোট,  সৈয়দ সাজ্জাদ জোহা ক্রিকেট ব্যাট প্রতীকে ৮৪৫ ভোট এবং  শফিউল আলম ইলিশ মাছ প্রতীকে ৬৮০ ভোট পেয়েছেন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

নির্বাচন কমিশন-এর সর্বশেষ

প্রচ্ছদ আওয়ামী লীগ বিএনপি ধর্মভিত্তিক দল জাতীয় পার্টি বামদল অন্যান্য দল প্রশাসন জাতীয় সংসদ নির্বাচন কমিশন শ্রমিক রাজনীতি ছাত্র রাজনীতি
সারাদেশ নিরাপত্তা ও অপরাধ বিশ্ব রাজনীতি উন্নয়ন ও সংগঠন অন্যান সংবাদ প্রবাস সাক্ষাতকার বই মতামত ইতিহাস অর্থনীতি

সম্পাদক : আবু জাফর সূর্য

কপিরাইট © 2019 পলিটিক্সবিডি.কম কর্তৃক সর্ব স্বত্ব ® সংরক্ষিত। Developed by eMythMakers.com